আমি বাংলাদেশ – জাহানারা খাতুন

কবিতা
Imran Khan || 12 July, 2019 ! 9: 15 pm

আমি বাংলাদেশ….[] জাহানারা খাতুন।
১১ই জুলাই ২০১৯ইং।

আমি বাংলাদেশ; রক্তাক্ত বাংলাদেশ!
১৭৫৭সালে ২৩শে জুন, বিশ্বাসঘাতকের চক্রান্তে
বাংলার নবাব কে খুন করে রক্তাক্ত হয়েছিলাম।

৪৭ সালের পর থেকে পশ্চিম পাকিস্তানিদের হাতে
শোষিত হয়ে হৃদয় ক্ষত বিক্ষত, রক্তাক্ত হয়েছে,
বঞ্চিত হয়েছিলাম সব অধিকার থেকে।

৫২ সালে মাতৃভাষার জন্য জীবন দিয়েছিলো
রক্তাক্ত হয়েছিলো বাংলার রাজপথ।
বুকের তাজা রক্তে অর্জিত হয়েছিলো ভাষা বাংলা।

২৫ শে মার্চ কালরাতে অপারেশন সার্চলাইটে
রক্তাক্ত হয়েছিলো দেশের মাটি স্বাধীনতাকামীদের রক্তে
হার মানেনি, এক সাগর রক্ত দিয়ে ছিনিয়ে এনেছিলো স্বাধীনতা।

স্বাধীন বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মরা;
ইতিহাস, ঐতিহ্যে পরিপূর্ণ পায়নি আমায়; রাজনীতি, হিংসা, নৈতিক অবক্ষয়ে পেয়েছে।

আমি রক্তাক্ত বাংলাদেশ!!
জন্মলগ্ন থেকেই আমি রক্তান্ত, নিপীড়িত, ধর্ষিতা ও নিগৃহীতা;
আমার খাল, বিল, নদী, সাগর জল সূর্য্য সন্তানদের রক্তে বিধৌত।

এখনও রক্তময় গন্ধ বাতাসে ভেসে বেড়ায়।
হত্যা, খুন ও ধর্ষণে রক্তাক্ত বাংলার মাটি।
শেষ হয়নি রক্তপাত, জানিনা কবে হবে শেষ!!!

আমি লজ্জিত ; মর্মাহত!
আজও বাংলার বুকে মা বোনেরা ধর্ষিতা হয়;
মানসিক বিকারগস্ত উন্মাদের হাতে।

এ বুকে কষ্টের হাহাকার!
বিশ্বজিৎ, অভিজিৎ, নাদিয়া, তনু, রাজন, রিফাতের রক্তাক্ত নিথর দেহ দেখতে হয়!
নিরাপত্তা কোথায়! কোথাও নেই?

চাই না আর শুনতে…
ধর্ষিতার আজাহারি, ফেলানির চিৎকার ;
আগুনে দগ্ধ নুসরাতের বাঁচার আকুতিময় আত্মচিৎকার।

দেখতে চাই না আর…
পোড়া লাশের স্তূপ; নিষ্পাপ মেঘদের কান্না;
ধর্ষণে মৃত্যু শিশু নাবালিকার লাশ।

আর! রক্তের হোলি খেলা নয়…
বিচার চাই বিচার, স্বাধীন ভাবে বাঁচার
বাংলার মাটিতে বিচার চাই।

Post Reads: 85 Views