কৈশরের সেই ১০০ টাকা : সেখ সাদী

উপন্যাস
Imran Khan || 06 June, 2018 ! 7: 54 pm

হাই স্কুলে পড়ি তখন। সপ্তাহে রবিবার হাট বসত। স্কুল এর হাফ বেলা ক্লাস শেষে বাড়ী ফেরা। ফেরার সাথে সাথে মা হাতে বাজারের ব্যাগ ধরিয়ে দিত। পকেটে ১০০ টাকা দিয়ে সেফটিপিন এটে দিত। হাটতে হাটতে বাজারে যেতাম। নাম ছিল কালিগঞ্জ বাজার। হাটে ঢুকতেই মাইকের শব্দ। মুজিব পরদেশীর গান বাজত। লোক জনের জটলা দেখলেই এগিয়ে যেতাম।

১০০ টাকা র পকেট দুই হাতে চেপে ধরে শাপ খেলা দেখতাম। সাপুড়ে একটু পরেই ছোট বাচ্চাদের চলে যেতে বলত। তখনো বুঝতাম না কেন চলে যেতে বলে, আর কিসের দাওয়াই বিক্রি করবে এখন । আংশিক লজ্জা ,আংশিক সন্দেহ এবং সবচেয়ে বেশী কৌতুহুল চেপে ভীর ঠেলে বেড়িয়ে যেতাম। ১০০ টাকায় একটা মাঝারী সাইজের ইলিশ মাছ, এবং এক ব্যাগ শাক সবজী কিনতাম। সবার আগে বাড়ী ফেরা। মা এক ব্যাগ বাজার নিয়েও সন্দেহের চোখে তাকাত। তার ধারনা আমি ১০০ টাকায় ১৫০ টাকা মেরে দিয়েছি।

আমার কৈশরে র সেই আনন্দ গুলো কোথায় আছে আমি জানিনা। আমি এখন জানি কি ওষুধ বিক্রি করে ক্যাভাসার রা। মাঝে মাঝে এখনো কৌতুহুল নিয়ে দাড়াই। ছোট ছেলে মেয়েদের সরে যেতে বলা হলে বড় রা সরে যায় , ছোট রা শিকড় গেরে বসে থাকে। আর ১০০ টাকা? হা হা হা…! এটা এখন একটা সেফটিপিনের দাম …………………………..

Comments

Post Reads: 1148 Views