abrar-fahad-

সেই চির চেনা পথে-জাহানারা খাতুন।

কবিতা
Imran Khan || 28 October, 2019 ! 9: 05 am

সেই চির চেনা পথে..[] ”””””””” জাহানারা খাতুন।

“মাগো ” আমি তোমাদের আশা পূরণ করে
তোমাদের নির্ভরতার প্রদীপ হতে চেয়েছিলাম
আমি নামাজ পড়তাম, তবলিগে যেতাম
আমি কোন দল করতাম না ” মা”।

আমার কোন শত্রু ছিলো না,
কারো সাথে ঝগড়া বিবাদ ছিলো না-
তবুও আমাকে আঘাতে আঘাতে জর্জরিত করে
মৃত্যুবরণ করতে হলো! কেনো!! কেনো!!

ভাবছি, মা…
ক্যাম্পাসে নিথর ঠাণ্ডা দেহখানি আজ লাশ
তাই লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়ি তে বাড়ি যাবে;
তুমি কেমন করে সইবে মা!
কেমন করে এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকবে।

সেই চিরচেনা পথে…
যে পথে স্বপ্ন নিয়ে প্রিয় এই ক্যাম্পাসে এসেছিলাম
স্বপ্ন ছিলো, বাস্তবায়ন হলো না, হবে না কখনো
অতৃপ্ত স্বপ্ন জানি তোমায় কুড়ে কুড়ে খাবে।

সেই চিরচেনা পথে…
কখন ছুটি হবে? বাড়িতে মায়ের কাছে যাবো
অপেক্ষা করে থাকতাম! মাও সন্তানের অপেক্ষায়
বার বার পথপানে চেয়ে দেখতো।

বাড়ি ফিরার পর মায়ের আনন্দ আর ধরতো না
মায়ের হাসি মুখ দেখে খুব ভাল লাগতো
কি খাওয়াবে! মায়ের ব্যস্ততা বেড়ে যেতো বহুগুন
প্রিয় খাবারগুলো ” মা” আর খেতে পারবে না।

মা জানো, বাড়ি ফিরার আর তাগিদ নাই আমার
নেই আনন্দ, উচ্ছ্বাস! আমি এখন শুধুমাত্র লাশ
আমি এখন নির্বাক, বধির, নিশ্চূপ, নিথর, ঠাণ্ডা
সব চাহিদার বাহিরে আমি “মা”।

সেই আমি আজ চিরদিনের ছুটি নিয়ে আসছি…
মাগো সেই চির চেনা পথে বাড়ি ফিরছি
তুমি সইতে পারবে তো, “মা”
এতোটা কষ্ট নিয়ে কি করে তুমি বাঁঁচবে।

আমাকে নিয়ে ভেবো না “মা”
আমার তো আর হারানোর কিছু নেই
আমি মরে গিয়ে বেঁচে গেছি
তুমি! তুমি বাঁচতে পারবে তো মা?

বিচার চেয়ো না “মা”! কি হবে বিচার চেয়ে?
ফিরে তো আর আসবো না, আমি?
বিচার পাবে না তুমি! তাই বিচার চেয়ো না
কারো কাছেই বিচার চেয়ো না, তুমি।

জানি, বাকি জীবন কাটবে তোমার শুধু
চোখের জল ফেলে, কলিজাটা পুড়বে তোমার
যার হারিয়েছে সেই বুঝে, কতো কষ্ট তার
যা কখনো পূরণ হয়নি; হবার নয়।

দোয়া করো, “মা”…
যারা তোমার বুক খালি করেছে-
তাদের মায়ের বুকও যেন খালি না হয়
সেই প্রার্থনাটুকুও করো।

রচনাকাল:
১২/১০/২০১৯ ইং

Post Reads: 109 Views