পিরিয়ডের ব্যাপারে কিছু ভুল ধারণা

Womens টিপস নারী
Razia Aktar Moni || 05 April, 2021 ! 5: 54 pm

👉পিরিয়ডের ব্যাপারে কিছু ভুল ধারণা –

❇️পিরিয়ডের সময় ব্যবহৃত সমস্ত কাপড়, বিছানার চাদর ইত্যাদিকে অনেকেই নাপাক মনে করে থাকেন, যেটি ভুল। এবং কিছু কিছু মহিলারা পিরিয়ডের জন্য আলাদা কয়েকটি কাপড় নির্ধারণ করে রাখেন যা শুধুমাত্র এই সময়টাতে পরিধান করেন, সুস্থ অবস্থায় আর ব্যবহার করাটাকে ভাল মনে করেন না। এবং এই কাপড়ে নামাজ বা অন্যান্য ইবাদত করাটাকেও অপছন্দ করেন। পিরিয়ড নিয়ে এমন অতিরঞ্জন মোটেও ঠিক নয়।
❇️পিরিয়ডের সময় নাপাকী (রক্ত) শুধুমাত্র লজ্জাস্থানে থাকে। এছাড়া প্রকাশ্য আর কোনো নাপাকী শরীরে থাকেনা যার সংস্পর্শে অন্যান্য বস্তুও নাপাক হতে পারে। তবে হ্যাঁ, লজ্জাস্থান থেকে যদি সেটি প্রসারিত হয়ে আপনার কাপড়চোপড় বা বিছানার চাদরে লেগে যায়, তাহলেই কেবল সেটি নাপাক হবে এবং তখন ধৌত করা জরুরি। অন্যথায় নয়। এছাড়া শুধুমাত্র পিরিয়ড অবস্থায় ব্যবহারে কারণেই কোনোকিছু নাপাক হয়ে যায়না।
—-
❇️আবার অনেকেই মনে করেন পিরিয়ড থেকে পবিত্র হওয়ার সময় অবাঞ্চিত লোম, হাতের নখ কাটা বাধ্যতামূলক, এটিও সঠিক নয়। কেননা অবাঞ্চিত লোম ও নখ কাটার ব্যাপারে বাধ্যবাধকতা হচ্ছে ৪০ দিন। অর্থাৎ একবার এসমস্ত জিনিস কাটার পর পরবর্তীতে ৪০ দিনের আগে না কাটা হলেও সমস্যা নেই। ৪০ দিন হয়ে গেলে তখন কাটা আবশ্যক, না কাটা হলে গুনাহ হবে।
নখের ক্ষেত্রে উচিত হলো হলে প্রতি সপ্তাহে কাটা। সপ্তাহে সম্ভব না হলে প্রতি ১৫ দিন পর। নখ বড় রাখা উচিত নয়, এটি সুন্নতের খেলাফ।
—-
✅পিরিয়ড থেকে পবিত্র হওয়ার জন্য ফরজ গোসলের সময় সাবান-শ্যাম্পু ব্যবহার করাও জরুরি নয়। শুধু পানি দ্বারা উত্তমরুপে লজ্জাস্থান পরিস্কার করে, কুলি এবং নাকে পানি দিয়ে শরীরের প্রতিটি স্থানে এমনভাবে পানি প্রবাহিত করলেই গোসল সম্পন্ন হয়ে যাবে, যাতে চুল পরিমাণ অংশ ও শুকনো না থেকে যায়।
_____

Comments

Post Reads: 264 Views