islamic-question-answer

বর্তমানে উঠতি বয়স্ক ছেলেমেয়েরা বিপথে চলে যাচ্ছে এর কারণ কি?

ইসলাম ও জীবন
Imran Khan || 16 August, 2018 ! 5: 04 pm

বর্তমানে উঠতি বয়স্ক ছেলেমেয়েরা বিপথে চলে যাচ্ছে এবং এ সমস্যা অত্যন্ত প্রকট আকার ধারণ করেছে। এর কারণ কি?
➖➖➖➖➖➖➖
প্রশ্ন: আজকাল প্রায় ঘরে ঘরে দেখা যাচ্ছে, বাবামারা তাদের ১৬/১৭ বছর বয়েসের ছেলেমেয়েদের নিয়ে বহু সমস্যায় আছে। দেখা যাচ্ছে, বাবা-মা যথেষ্ট ইসলামিক, তারা যথেষ্ট দান-সাদাকাও করে। কিন্তু সন্তানরা বিপথে চলে যাচ্ছে। এটা কি তাদের প্রতি দুনিয়ার পরীক্ষা নাকি বাবা-মায়ের কোনো পাপের কারণে আল্লাহ প্রদত্ত শাস্তিভোগ? এ সব পরিস্থিতিতে বাবা-মা কিভাবে ধৈর্য ধরতে পারে?

উত্তর:
বাবা-মার দায়িত্ব শিশুদেরকে দ্বীন শিক্ষা প্রদান করা। তারা যেন জাহান্নামের দিকে ধাবিত না হয় সে জন্য তাদেরকে তাদের উপর অর্পিত এ গুরু দায়িত্ব যথার্থভাবে পালন করতে হবে।
স্বয়ং আল্লাহ তাআলা তাদের উপর এ দায়িত্ব অর্পন করেছেন। তিনি বলেন:
يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا قُوا أَنفُسَكُمْ وَأَهْلِيكُمْ نَارًا
“হে মুমিনগণ, তোমরা নিজেদেরকে এবং তোমাদের পরিবার-পরিজনকে জাহান্নামে অগ্নি থেকে রক্ষা করো।” (সূরা আত তাহরীম: ৬)
এ জন্য সবার আগে তারা নিজেদেরকে সন্তানদের সামনে সত্যিকার আদর্শবান, দ্বীনদার ও তাকওয়াবান হিসেবে উপস্থাপন করবেন, তাদেরকে দ্বীনী পরিবেশে গড়ে তোলার জন্য উপযুক্ত দ্বীনী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দিবেন এবং সর্বপরি দ্বীন থেকে দুরে সরিয়ে দিতে পারে বা চরিত্র ধ্বংস করতে পারে এমন সব ধরণের উপায়-উপকরণ থেকে তাদেরকে মুক্ত করবেন।
অর্থাৎ সন্তানকে আল্লাহর বিধান অনুযায়ী গড়ে তোলার জন্য তারা সর্বাত্তক চেষ্টা করবেন। সব ধরণের চেষ্টা করার পরও যদি সন্তান বিপথে চলে যায় তাহলে তার দায়-দায়িত্ব পিতামাতার উপর বর্তাবে না। কারণ আল্লাহ তআলা বলেন:
فَاتَّقُوا اللَّـهَ مَا اسْتَطَعْتُمْ
“অতএব তোমরা যথাসাধ্য আল্লাহকে ভয় কর।” (সূরা তাগাবুন: ১৬)
তিনি আরও বলেন:
لَا يُكَلِّفُ اللَّـهُ نَفْسًا إِلَّا وُسْعَهَا ۚ لَهَا مَا كَسَبَتْ وَعَلَيْهَا مَا اكْتَسَبَتْ ۗ
“আল্লাহ কাউকে তার সাধ্যাতীত কোন কাজের ভার দেন না, সে তাই পায় যা সে উপার্জন করে এবং তাই তার উপর বর্তায় যা সে করে।” (সূরা বাকারা: ২৮৬)

কিন্তু যদি পিতামাতা নিজেদেরকে শিশু-সন্তানদের সামনে দ্বীনদার ও আদর্শবান হিসেবে প্রকাশ না করে অথবা তাদেরকে সেকুল্যার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করে, অথবা তাদের হাতে এমন সব উপকরণ তুলে দেয় যা তাদেরকে চরিত্র ধ্বংসের জন্য যথেষ্ট তারপর যদি হাহাকার করে যে, সন্তান বিপথে চলে যাচ্ছে!! তাহলে তা হবে নিশ্চিত বোকামি।
কারণ, নিমগাছ লাগিয়ে আঙ্গুরফল আশা করা ঠিক নয়।
কিন্তু বর্তমানে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাদের অধিকাংশ পরিবার এই কঠিন বাস্তবটায় পতিত। যার কারণে তাদের উঠতি বয়স্ক যুবক-যুবতী সন্তানদের নিয়ে দু:শ্চিন্তার অন্ত নাই। আল্লাহ আমাদেরকে ক্ষমা করুন এবং দ্বীনের সঠিক বুঝ দান করুন। আমীন।
➖➖➖➖➖➖➖
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল (মাদানী)
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Please follow and like us:

Post Reads: 125 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 + sixteen =