সশব্দে সওমের নিয়্যাত করা বিদ’আত কেন?

ইসলাম
Imran Khan || 14 May, 2018 ! 7: 08 pm

উত্তরঃনিয়ত আরবী শব্দ। এর বাংলা অর্থঃ ইচ্ছা করা, মনস্ত করা, এরাদা করা, সংকল্প করা।
[মুনজিদ, ৮৪৯/ ফতহুল বারী, ১/১৭]
.
শরীয়তে নিয়তের গুরুত্ব অপরিসীম। ব্যক্তির আমল আল্লাহর নিকট গ্রহণীয় হয় না যতক্ষণে বান্দা তার নিয়ত সঠিক না করে নেয়। অর্থাৎ আল্লাহর জন্যে তাঁর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে না করে নেয়। আল্লাহ বলেন,
-‘তাদেরকে এছাড়া কোন নির্দেশ করা হয়নি যে, তারা খাঁটি মনে একনিষ্ট ভাবে আল্লাহর এবাদত করবে…।
[বাইয়্যিনাহ ৫]
.
নবী ﷺ বলেন,
-‘আমল সমূহ নিয়তের (ইচ্ছার) উপর নির্ভরশীল, আর প্রত্যেক ব্যক্তি তাই পাবে যা সে নিয়ত করবে। সুতরাং যে ব্যক্তি পার্থিব জীবনে সুখ-শান্তি লাভের উদ্দেশ্যে হিজরত করবে সে তাই পাবে। কিংবা কোন মহিলাকে বিবাহ করার উদ্দেশ্যে হিজরত করবে সে তাই পাবে’।
[বুখারী, খন্ড ১, হা/১]
.
সালাতের মতো রোযারও সশব্দে নিয়্যাত করা বিদ’আত। রাসুল ﷺ, সাহাবা কিরাম (রা:) ও সালাফে সালিহীনের মধ্যে কেউ রোযার সশব্দে নিয়্যাত করেছেন মর্মে বর্ণনা পাওয়া যায় না। এ প্রসংগে ইবনু আবিদীন (রাহ.) বলেন,
-‘এটা মাশা’য়িখের সুন্নাত। রাসুল ﷺ মুখে নিয়্যাত উচ্চারণ করেছেন -এ ধরনের কোন প্রমান নেই।
[ইবনু আবিদীন, রাদ্দুল মুহতাব খন্ড-৭ পৃষ্ঠা-৩৪৩]

ইবনুল কাইয়ুম (রাহেঃ) বলেন,
-‘নিয়ত হচ্ছে, কোন কিছু করার ইচ্ছা করা এবং সংকল্প করা। উহার স্থান হচ্ছে অন্তর যবানের সাথে আসলে তার কোন সম্পর্ক নেই। এ কারণে না তো নবীজী হতে আর না কোন সাহাবী হতে নিয়তের শব্দ বর্ণিত হয়েছে’।
[ইগাসাতুল্ লাহ্ফান, ১/২১৪]
.
সাওমের রাখার উদ্দেশ্যে আপনি ভোর রাতে উঠছেন, সেহেরী খেয়েছেন, ব্যাস এটাই আপনার নিয়্যাত হয়ে গেছে। কিন্তু এভাবে ‘নাওয়াই তুয়ান আছুম্মা গাদাম……. বলার দরকার নাই। এটা বিদাত।
.
সওমের সময় কোন সময়ই রাসুল ﷺ এরকম শব্দ পড়ে নিয়ত করেন নি। কোন সাহাবী বা তাবেয়ী আর না চার ইমামদের কেউ এরকম নিয়ত পড়তেন। তাই যে আমল নবী ﷺ কিংবা সালাফে সালেহীন দ্বারা প্রমাণিত নয় সে আমল অবশ্যই একটি শরীয়তে আবিষ্কৃত নতুন আমল যা, বিদআত। রাসুল ﷺ বলেন,
-‘যে ব্যক্তি শরীয়তে নতুন কিছু আবিষ্কার করল যা, শরীয়তের অংশ নয় তা বর্জনীয়’।[মুসলিম]

Please follow and like us:

Post Reads: 18 Views