Memorable-childhood-bangla-story

হায়রে শৈশব : আমাদের সময়ে ফেইসবুক ছিলো না

উপন্যাস
Imran Khan || 03 June, 2018 ! 1: 42 pm

৯০-৯২তে জন্ম নেয়া ছেলেমেয়েগুলো হয়তো আমার মতো একটা দোটানায় ভোগে।আমরা খুব সুন্দর একটা ছেলেবেলা পার করে যখন জীবনের মধ্যভাগে ঠিক তখনি আমাদের চারপাশটা এমন ভাবে পরিবর্তিত হয়েছে যে যারা এর সাথে মানিয়ে নিতে পেরেছে তারা আজ “কুল ডুড” আর যারা ছিটকে পড়েছে তাদের সোজা বাংলায় “ক্ষ্যাত”।

আমাদের সময় অতিবাহিত করার জন্য ফেইসবুক ছিলো না।আমরা সারা দিন স্কুলে বাদরামি করে বিকেলে খেলেতে যেতাম।মাঝে মাঝে এলাকার আপুরা যখন মাঠ ক্রস করতো,বড় ভাইয়ারা এসে ব্যাট নিয়ে বিশাল বিশাল ছক্কা মেরে বল হারিয়ে ফেলতো।কষ্ট করে টিফিনের টাকা জমিয়ে কেনা বল হারানোর দুঃখ যে কি মারাত্মক তা আমরা ছাড়া কেউ বুঝবে না। বাসায় টিভি দেখতে দিতো না।প্রতি শুক্রবার দুপুরে বাংলা ছবি চলতো। কোন এক ফাকে দেখে নিতাম নায়ক নায়িকা কে।যদি রিয়াজ,সালমান শাহ,বাপ্পা রাজ,শাবনূর,পূর্নিমা হতো তবে বুঝতাম ছবিটা অসম্ভব ভালো হবে।ওই দিন বিকেলে আর খেলতে যেতাম না। তবে অন্য নায়ক নায়িকার ছবি হলে ওতো পাত্তা দিতাম না। আগে টিফিনের টাকা বাচিয়ে ৫টাকার বাদাম খেতে দলবেঁধে ছুটে যেতাম। আর আজ দামী রেস্টুরেন্টে একাকী গিয়ে ফেসবুকে কিছু ছবির খোরাক মেটাতে ৫০০ টাকার খাবার খেয়েও সেই পরিতৃপ্তি পাই না। আজ সব আছে কিন্তু সেই যুগটা আর নেই। আজ বড় ভাইয়ারা ফেইসবুকেই বড় আপুদের দেখে নেয়। কষ্ট করে মাঠে দাঁড়ায় না।আজ পকেটে বল কেনার টাকা আছে কিন্তু খেলার মানুষগুলো হারিয়ে গেছে। একটা সময় সবাই মিলে প্ল্যান করতাম কোথাও যাওয়ার জন্য আর এখন প্ল্যান করি এক সাথে হওয়ার জন্য।

চারপাশটা একটু ফিরে তাকালে দেখি নিজের ছায়া। এছাড়া কোথাও কেউ নেই।সত্যি কেউ নেই।

লেখাটার মাঝে নিজেরে খুঁজি পাবি……হায়রে শৈশব……..

লেখক: সেখ সাদী

Please follow and like us:

Post Reads: 252 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =